২২ অক্টোবর, ২০১৭ | ৭ কার্তিক, ১৪২৪ | ১ সফর, ১৪৩৯


বাইশারী পেঠান আলী পাড়া জামে মসজিদের সাবেক সেক্রেটারী বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ

বাইশারী প্রতিনিধি #
বান্দরবানের  নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের পেঠান আলী পাড়া জামে মসজিদের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে সাবেক মসজিদ পরিচালনা কমিটির সেক্রেটারী মধ্যম বাইশারী মৃত সুলতান আহমদের পুত্র নুরুন্নবীর বিরুদ্ধে। মসজিদ পরিচালনা কমিটির বর্তমান যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ শামশুল আলম, সমাজপতি মোঃ ছব্বির আহামদ, উপদেষ্টা পেঠান আলী, জালাল আহামদ সহ অনেকেই এ প্রতিবেদকের নিকট জানান, বিগত সময়ে নুরুন্নবী মসজিদের সেক্রেটারী হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে মসজিদের পুকুরের মাছ বিক্রির টাকা, দৈনন্দিন আয়ের টাকা, মসজিদের বাৎসরিক ধর্মীয় সভায় উত্তোলনের টাকা সহ বিভিন্ন মালামাল আত্মসাত করেছে। এ অভিযোগে সেক্রেটারী পদ থেকে তাকে অপসারণও করা হয়। অপসারণকালীন তিনি মসজিদের সমস্ত দায়িত্ব ও টাকা-পয়সা এবং মালামাল বর্তমান কমিটিকে বুঝিয়ে দেওয়ার কথা থাকলেও অদ্যাবধি বুঝিয়ে দেয় নাই। কমিটির সদস্যরা আরো জানান, মসজিদের হিসাব বুঝিয়ে দিতে বলায় সে আরো উল্টো হুমকি প্রদান করে আসছে।
উক্ত ঘটনায় মসজিদ পরিচালনা কমিটি তার বিরুদ্ধে বাইশারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে লিখিত অভিযোগ দায়ের করবেন বলে জানান। অভিযোগের কথা শুনে নুরুন্নবী আরো বেপরোয়া হয়ে প্রকাশে গালমন্দ শুরু করে।
সাবেক সেক্রেটারী নুরুন্নবী এলাকায় মসজিদের টাকা আত্মসাত ছাড়াও বিদেশে লোক পাঠানোর নামে মোটা অংক হাতিয়ে নিয়ে অনেক লোকজনকে ভিটে মাটি ছাড়া করেছে। এছাড়া তিনি বিভিন্ন কৌশলে লোকজনের কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে মোটা অংক হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগও পাওয়া গেছে এবং বিভিন্ন ইনসুরেন্সের সাইন বোর্ড ব্যবহার করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে এখন অফিস সহ নিজেও উধাও হয়ে যায়। যার ফলে শত শত গ্রাহক এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছে।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত নুরুন্নবী জানান, তার বিরুদ্ধে আনিত সব অভিযোগ সত্য নয়। তবে মসজিদের দায়িত্ব পালনকালীন কিছু টাকা তার পকেটস্থ হয়েছে। সেগুলো তিনি হিসাব করে বুঝিয়ে দিবেন।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।