‘শাবানা ম্যাডাম আমার আইডল’: ইমু

নবাগত অভিনেত্রী আলভিরা ইমু। ছোটবেলা থেকে ইচ্ছা একজন গুণী অভিনেত্রী হওয়া। শোবিজে পা রাখতেই ৫টি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। পড়ছেন নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ’তে। ইমুর সঙ্গে ইত্তেফাক অনলাইনের একান্ত সাক্ষাৎকারে উঠে এসেছে তার বর্তমান ব্যস্ততা ও তার স্বপ্নের কথা।
কেমন আছেন?
জ্বী, আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছি।
বর্তমান ব্যস্ততা নিয়ে বলুন…
বর্তমানে ২টি ছবির শুটিং চলছে। পরিচালক তাজুল ইসলামের “গোপন সংকেত”, যেখানে আমার বিপরীতে অভিনয় করছেন সায়মন সাদিক। এটা আমার প্রথম ছবি। ছবিটির শুটিং প্রায় শেষের পথে। ঈদের পরে ভালো কোনো দিন মুক্তি পাবে। আরেকটা রশীদ শিকদার বুলবুলের “খুশি” যার শুটিংও ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে। এ ছবিটিতে আমার বিপরীতে অভিনয় করছে কলকাতার নায়ক ধ্রুব। আরও ৩টা ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। খুব শীঘ্রই সেগুলোর শুটিং শুরু হবে।
নায়ক আলমগীরের সাথে অভিনয় করছেন, বিস্তারিত জানতে চায়…
হ্যাঁ আমি আলমগীর আংকেলের সাথে “জেনারেশন গ্যাপ” নামে একটা ছবিতে অভিনয় করব। কিছুদিন পরেই শুটিং শুরু হবে। এই কাজটি আমার জন্য অনেক ভালোলাগার বিষয়।
অভিনয় নিয়ে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী?
একজন গুণী অভিনেত্রী হতে চাই। যাতে দর্শক আমাকে সারাজীবন মনে রাখে। যেমন শাবানা, ববিতা এসব অভিনেত্রীদের মানুষ আজ স্মরণ করছে। দর্শক যদি আমাকে গ্রহণ করে তাহলে আমি ও এমন বড় অভিনেত্রী হব ইনশাল্লাহ।

কার কাজ ভাল লাগে, উৎসাহ পান…
শাবানা ম্যাডাম আমার আইডল। ছোটবেলা থেকেই আমি উনার ভক্ত। উনাকে পছন্দ করার অন্যতম কারণ হলো-অসাধারণ অভিনয় করে। আর উনি অভিনেত্রীর পাশাপাশি একজন আদর্শ মা, আদর্শ বউ। একজন সাংসারিক মানুষ।
সামনে ঈদ। ঈদের পরিকল্পনা কী?
ঈদে তেমন কোনো পরিকল্পনা নাই। পরিবারের সদস্যরা দেশের বাইরে থাকায় ঈদ তেমন আনন্দের হবেনা। একাকী ঘরে বসে বইপড়া, গানশোনা, নামাজ পড়া, আর ঘুম পড়ে ঈদ কাটবে।
অবসরের সময়ে…
গানশুনি, প্রিয় মানুষদের সাথে কথা বলি, আর মনের মাঝে সুপ্ত হাজারো রঙ্গিন গল্পগুলো, ভাললাগা, মন্দলাগা গুলো ডায়েরিতে লিখি।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।