২৪ অক্টোবর, ২০১৭ | ৯ কার্তিক, ১৪২৪ | ৩ সফর, ১৪৩৯


দুর্যোগে আওয়ামী লীগই জনগণের পাশে দাঁড়ায়-শেখ হাসিনা

বিবিএন#

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রাকৃতিক কিংবা যে কোন দুর্যোগে কেবল আওয়ামী লীগই জনগণের পাশে দাঁড়ায়। বিএনপি বড় বড় কথা বলে, তারা কখনই জনগণের কষ্টের সময় পাশে দাঁড়ায় না। সরকার কিংবা বিরোধী দল, যে অবস্থাতেই হোক বিএনপি কখনও দুর্যোগে মানুষের সহযোগিতার হাত বাড়ায় না। তারা কাজে নয়, কথায় পারদর্শী। আর আওয়ামী লীগ কথায় নয়, কাজে বিশ্বাসী। আমরা এর অনেক প্রমাণ রেখেছি। সুইডেনে তিনদিনের সফর শেষে শনিবার সকালে প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরেন। এ সময় গণভবনে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা তার সঙ্গে সাক্ষাতকালে তিনি একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর সুইডেন সফরের সময় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া তাঁকে উদ্দেশ করে বলেন যে, ‘দেশে দুর্যোগ চলছে আর প্রধানমন্ত্রী আনন্দ ভ্রমণে আছেন, দেশের মানুষের প্রতি তার কোন মমতা নেই’। খালেদা জিয়ার এ অভিযোগের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একথা বলেন। সকাল সাড়ে নয়টায় শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে সরাসরি গণভবনে পৌঁছেই সেখানে উপস্থিত দলের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের কাছে পার্বত্য অঞ্চলের দুর্যোগে উদ্ধার ও পরবর্তী কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে চান শেখ হাসিনা। ওবায়দুল কাদের পার্বত্য এলাকার পাহাড় ধসের উদ্ধার কার্যক্রম, আহতদের চিকিৎসা প্রদান ও পুনর্বাসনের গৃহীত পদক্ষেপগুলো তুলে ধরেন। সরকারের পাশাপাশি আওয়ামী লীগের ত্রাণ তৎপরতার কথাও দলীয় সভানেত্রীকে জানান কাদের। এ সময় কয়েকজন নেতা গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, খালেদা জিয়া অভিযোগ করেছেন-‘আপনি (প্রধানমন্ত্রী) বিদেশে আনন্দ ভ্রমণে গেছেন? এ কথায় প্রধানমন্ত্রী উষ্মা প্রকাশ করে বলেন, আমি সফরে যাওয়ার পরে পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনা জানার পরপরই সেনাবাহিনীসহ প্রশাসনের সর্বস্তরের কর্মকর্তা এবং আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দকে উদ্ধার তৎপরতা এবং চিকিৎসা সেবা প্রদানের নির্দেশ দেই। শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি বড় বড় কথা বলে। কিন্তু মানুষের পাশে দাঁড়ায় না। তারা ক্ষমতায় থাকতে একবার পার্বত্য অঞ্চলের প্রাকৃতিক দুর্যোগ হয়। সে সময় চারদিনেও সরকারীভাবে কোন ত্রাণ দেয়া হয়নি। আমরা তখন বিরোধী দলে ছিলাম। আমি যখন দলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে সেখানে ত্রাণ বিতরণ করতে যাই, তা দেখে বিএনপি সরকারের মন্ত্রী কর্নেল আকবর হেলিকপ্টারে কোন ত্রাণ ছাড়াই সেখানে গিয়ে স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেছিলেন, ‘ধার করেও ত্রাণ বিতরণ করতে পারনি কেন? তিনি বলেন, দুর্যোগে বিএনপি জনগণের পাশে দাঁড়াবে না। বড় বড় কথা বলবে। এটাই বিএনপির চরিত্র। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে উদ্ধার কার্যক্রম জোরদার এবং পুনর্বাসন ও চিকিৎসার জন্য নির্দেশ দেই। যারাই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, আমরা তাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করব। সাক্ষাতকালে কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুইডেনে তিন দিনের দ্বিপক্ষীয় সফর শেষে দেশে ফিরেছেন। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইটি ফ্লাইট (বিজি-০০২) প্রধানমন্ত্রী ও সফরসঙ্গীদের নিয়ে শনিবার সকাল সোয়া ৯টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন। শুক্রবার দুপুরে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে স্টকহোম থেকে লন্ডনে যাত্রা করেন শেখ হাসিনা। হিথ্রো বিমানবন্দরে তিন ঘণ্টা যাত্রাবিরতির পর বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে তিনি দেশের উদ্দেশে যাত্রা করেন। স্টকহোমের অরল্যান্ডা বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান সুইডেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম সারওয়ার। সুইডিশ প্রধানমন্ত্রী স্তেফান লোফভেনের আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী এই সফরে যান। স্ক্যান্ডেনেভিয়ান এই দেশটিতে বাংলাদেশের কোন সরকার প্রধানের এটিই প্রথম দ্বিপক্ষীয় সফর। সফরকালে প্রধানমন্ত্রী ৪৭ সদস্যের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদলসহ একটি উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন। প্রধানমন্ত্রী সফরকালে সুইডিশ প্রধানমন্ত্রী স্তেফান লোফভেনের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠক করেন এবং সুইডেনের রাজা ষোড়শ কার্ল গুস্তাফের সঙ্গে সাক্ষাত করেন। দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে একান্ত ও দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের পর যৌথ বিবৃতিতে তাঁরা সম্পর্কের নতুন দুয়ার উন্মোচনের আশার কথা বলেন। শেখ হাসিনা সুইডিশ পার্লামেন্ট পরিদর্শন করেন এবং পার্লামেন্টের ভারপ্রাপ্ত স্পীকার তোবিয়াস বিলস্টর্মের সঙ্গে বৈঠক করেন। প্রধানমন্ত্রী প্রবাসীদের দেয়া সংবর্ধনা এবং বাংলাদেশ-সুইডেন বাণিজ্য ও বিনিয়োগ ফোরামের একটি বিজনেস ডায়ালগে অংশ নেন। সফরকালে সুইডিশ কোম্পানি এইচ এ্যান্ড এম-এর সিইও কার্ল যোহান পারসন এবং ইনভেস্টরের প্রেসিডেন্ট জ্যাকব ওয়ালেনবার্গ, ভাইস প্রেসিডেন্ট মারকাস ওয়ালেনবার্গ এবং এবিবি সুইডেনের সিইও যোহান সোডারস্টর্মের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বৈঠক করেন। এদিকে সুইডেন যাওয়ার পথে লন্ডনে যাত্রাবিরতি দিয়ে স্বজনদের সঙ্গে দেখা করেন শেখ হাসিনা। যুক্তরাজ্য পার্লামেন্টে পুনরায় নির্বাচিত হওয়া ভাগ্নি টিউলিপ সিদ্দিককে শুভেচ্ছা জানান তিনি।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।