২৪ অক্টোবর, ২০১৭ | ৯ কার্তিক, ১৪২৪ | ৩ সফর, ১৪৩৯


‘২০২০ সালেই শিক্ষার ডিজিটাল রূপান্তর’

ডেস্ক নিউজ#

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুুল মুহিত বলেছেন, ডিজিটাল শিক্ষাসৈনিকরা যেভাবে কাজ করছে তাতে বাংলাদেশে শিক্ষার ডিজিটাল রূপান্তর-২০৪০ সালের বদলে ২০২০ সালেই হয়ে যাবে। দেশটির ডিজিটাল রূপান্তরও একই সময়ে হবে বলে আশা করেন তিনি। মঙ্গলবার রাজধানীর বিয়াম মিলনায়তনে বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত দেশের প্রথম ডিজিটাল শিক্ষা সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপরেখা প্রণয়নে বেসিস সভাপতির অবদানের কথা উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী দেশটির ডিজিটাল রূপান্তরের অগ্রগতির বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন।অনুষ্ঠানে বক্তব্য পেশকালে নওগঁাঁ ৬ আসনের সংসদ সদস্য ইস্রাফিল আলম বলেন, দেশের প্রতিটি উপজেলা ও গ্রামকে ডিজিটাল করতে হবে। তিনি শিক্ষার ডিজিটাল রূপান্তরে বিজয় ডিজিটালের প্রচেষ্টাকে স্বাগত জানিয়ে একে সহায়তা করার আশ্বাস দেন।বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন, সারা দুনিয়ার বদলে যাওয়া প্রেক্ষিতকে বিবেচনা করে যদি আমরা এখনোই জ্ঞানকর্মী গড়ে তুলতে না পারি, তবে ডিজিটাল যুগে আমাদের অস্তিত্ব বিপন্ন হবে। তিনি প্রাথমিক স্তরে কম্পিউটার শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করার আহ্বান জানান। একই সঙ্গে তিনি শিশুদের প্রোগ্রামিংয়ের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেয়ার জন্য সবার প্রতি অনুরোধ করেন। ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে হলে ডিজিটাল শিক্ষা সবার আগে’Ñ এ সেøাগানের ওপর ভিত্তি করে ডিজিটাল শিক্ষা সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সারা দেশ থেকে আগত বিজয়-নেটিজেনের সহস্রাধিক শিক্ষার ডিজিটাল রূপান্তরের কর্মীর সরব উপস্থিতিতে দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত সম্মেলনটির মূল আয়োজক ছিলেন তথ্যপ্রযুক্তিবিদ ও বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার।
সেমিনারে বিজয় শিশুশিক্ষার ওপর প্রেজেন্টেশন তুলে ধরেন বিজয় ডিজিটালের সিইও জেসমিন জুঁই, স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন নেটিজেন আইটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক রায়হান নোবেল। বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও আলোচনা করেন নওগাঁ ও ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।