২০ এপ্রিল, ২০১৯ | ৭ বৈশাখ, ১৪২৬ | ১৪ শাবান, ১৪৪০


বিবিএন শিরোনাম

ঈদগাঁওতে কেন্দ্রে কেন্দ্রে ইভিএমে ভোটদান বিষয়ক অবহিতকরন সভা চলছে

নিজস্ব প্রতিবেদক,ঈদগাঁও:কক্সবাজার সদর উপজেলায় এই প্রথমবারের মত ইভিএম পদ্ধতির আলোকে পরিচালিত হতে যাচ্ছে উপজেলা নির্বাচন। যেটা স্বচ্ছ ও সহজ পদ্ধতির নির্বাচন। সদরের আওতাধীন বৃহত্তম ঈদগাঁওর ৭ ইউনিয়ন তথা ইসলামপুর,ইসলামাবাদ, পোকখালী, চৌফলদন্ডী, জালালাবাদ, ঈদগাঁও এবং ভারুয়াখালীর প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে এক যোগে শুরু হয়েছে ইলেট্রনিক ভোটিং মেশিন  (ইভিএম) এ পদ্বতিতে ভোটদান বিষয়ক ভোটার দের মাঝে অবহিতকরন সভা। চলমান রয়েছে। ভোটারেরা স্ব স্ব কেন্দ্রে ইভিএম প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত শিক্ষকদের কাছ থেকে ভোটদানের পদ্ধতি এবং কৌশল জেনে নিতে পারেন ২৪ থেকে ২৮ মার্চের মধ্যে। তবে ২৯ মার্চ প্যাকটিক্যাল মক ভোটিং অনুষ্টিত হবে বলেও জানা গেছে। ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহনের সুবিধাদি হলো, ইন্টারনেট সংযোগ নেই বিধায় হ্যাকিং করার কোন সুযোগ নেই,জালভোট দেয়া-কেন্দ্র দখল করে ভোট প্রদান-একজনের ভোট অন্যের পক্ষে প্রদান,একবার ভোট দিয়ে থাকলে দ্বিতীয়বার ভোট দেয়া যায়না,নিধার্রিত সময়ের আগে মেশিন চালু হওয়ার সুযোগ নেই বিধায় ভোট গ্রহন শুরুর পূর্বে অবৈধভাবে ভোটগ্রহন বা প্রদানেরও সুযোগ নেই,পাসওয়ার্ড সংরক্ষিত বলে প্রিজাইডিং অফিসার/ সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ব্যতিত অন্য কারো পক্ষে মেশিন চালু করা সম্ভব নয়,কোন অবস্থাতেই অবৈধভাবে ভোট প্রদানের সুযোগ নেই এমনকি ইভিএম ছিনতাই করে নিলেও তার সুযোগ নেই, বায়োমেট্রিক যাচাই ও ব্যক্তির উপস্থিত বাধ্যতা মুলক বিধায় কেন্দ্র করেও ভোট প্রদান সম্ভব নয়,বায়োমেট্রিক যাচাই করে ভোট প্রদান করতে হয় বিধায় পছন্দমত প্রিজাইডিং/সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার নিয়োগ করেও ভোট কার চুপি করার কোন সুযোগ নেই,কোন কারনে  ভোটার কেন্দ্রে না গেলে বা মৃত ভোটারের ভোট অন্য কারো পক্ষে প্রদান করা সম্ভব হবেনা,ভোট গ্রহনের পরপরই স্বল্প সময়েই কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষনা করা যায়,ভোট প্রদান শেষে স্বয়ংক্রিয় ভাবে ফলাফল প্রিন্ট ও বিতরন করা সম্ভব এবং মেশিন ব্যবহার সংক্রান্ত সম্পূর্ণ লগ সংরক্ষিত করা হয়।এ কার্যক্রমে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন, ঈদগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক এবং ইভিএম প্রশিক্ষক রতন কান্তি দে।ঈদগাঁও মাইজ পাড়া আজিজিয়া নুরুল উলুম মাদ্রাসা কেন্দ্রের ইভিএম প্রশিক্ষক সমীর রুদ্র জানান,নতুন প্রযুক্তির সাথে পরিচিতি হওয়া দরকার। এটি গুরুত্বপূর্ন অধ্যায়। সকল ভোটার দেরকে ইলেট্রনিক ভোটিংয়ের বিষয়ে ধারনা নেয়া একান্ত জরুরী।নাপিতখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও ইভিএম প্রশিক্ষক ছৈয়দ করিম জানান, ভোটার দের সাথে ইলেট্রনিক ভোটিং মেশিন ইভিএমের পদ্বতি বিষয়ক সভা সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলে।সচেতন ভোটার ছৈয়দ করিম জানিয়েছেন,সদরের ইভিএম ভোটিং হওয়াতে ভোট কারচুপি ও কেন্দ্র দখল থেকে সাধারন ভোটারেরা মুক্তি পাবে। বর্তমান সরকারের যুগোপযোগী পদক্ষেপ কে স্বাগত জানাই। এ ধারা অব্যাহত রাখার প্রতি আহবান জানান।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।