১৬ জুন, ২০১৯ | ২ আষাঢ়, ১৪২৬ | ১২ শাওয়াল, ১৪৪০


দেশের সিনেমা হল বন্ধ হচ্ছে না

১২ এপ্রিল থেকে দেশের সিনেমা হলগুলো বন্ধের ঘোষণা প্রত্যাহার করেছে হল মালিকদের সংগঠন চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি।  মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর সচিবালয়ে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সাথে বৈঠকের পর চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ এবং প্রধান উপদেষ্টা সুদীপ্ত কুমার দাস এ সিদ্ধান্ত জানান। এর আগে বৈঠকে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সিনেমা হলই যদি বন্ধ হয়ে যায়, তাহলে সিনেমা দেখানো হবে কোথায়! সে কারণে দেশের চলচ্চিত্র বাঁচাতে হলে সিনেমা হল বাঁচাতে হবে। একসময় সপ্তাহে দু’টোর বেশি সিনেমাও মুক্তি পেতো। এখন তা হয় না।’হল মালিকদের দাবি প্রসঙ্গে ড. হাছান বলেন, ‘হল মালিকেরা বিদ্যুৎ বিলের বাণিজ্যিক হার এবং ‘পিক আওয়ার’ হার রেয়াতের দাবি জানিয়েছেন। মন্ত্রণালয় থেকে পূর্বেই এ বিষয়ে বিদ্যুৎ বিভাগে যোগাযোগ করা হয়েছে, নতুন করে আবারও বিষয়টি আলোচনা করা হবে। দেশি একটি ছবি রপ্তানির বিপরীতে ভারতীয় একটি সিনেমা আমদানির ছাড়পত্র পেতেও যে বিলম্ব হতো, তা দুর করা হবে।’ ‘নির্দিষ্ট সংখ্যক উপমহাদেশীয় ভিন্ন ভাষার অর্থাৎ মূলত: হিন্দি ছবি আমদানির যে দাবি তারা রেখেছেন, চলচ্চিত্র প্রযোজক, পরিচালক, শিল্পী-কলাকুশলী সকলের সাথে আলোচনা করে যৌক্তিক সিদ্ধান্ত নেয়া হবে’, বলেন তথ্যমন্ত্রী। চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির প্রধান উপদেষ্টা সুদীপ্ত কুমার দাস বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের জানান, ‘মাননীয় তথ্যমন্ত্রীর সাথে ফলপ্রসূ বৈঠক শেষে আমরা সিনেমা হল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করেছি। চলচ্চিত্রকে শিল্প হিসেবে ঘোষণাটি কার্যকর করা এবং নির্দিষ্ট সংখ্যক হিন্দি সিনেমা আমদানির করলে মানুষ যেমন হলমুখী হবে, তেমনি দেশের চলচ্চিত্র শিল্পেরও দ্রুত বিকাশ ঘটবে। সরকার যুগোপযোগী সিদ্ধান্তের মাধ্যমে দেশের চলচ্চিত্র শিল্পকে বাঁচাবে বলে আমরা আশা করি।’এর আগে  ১৩ মার্চ সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলন ডাকে ‘চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি’। তখন সংগঠনটির সদস্যরা ঘোষণা দিয়েছিলেন, ১২ এপ্রিল থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ হচ্ছে দেশের সব সিনেমা হল।এমন ঘোষণার কারণ হিসেবে প্রদর্শক সমিতির নেতারা ওইদিন জানিয়েছিলেন: সিনেমা হল চালু রাখার জন্য যে পরিমাণ ছবি দরকার তা নির্মিত হচ্ছে না। তাই বিদেশি ছবির আমদানিতে সরকারের সহায়তা কামনা ও সহজ নীতিমালা তৈরি করা সাথে সাথে দেশের ছবির উৎপাদন বাড়ানোর সরকারি হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়েছে। এছাড়া সংবাদ সম্মেলনে সিনেমা হলের মালিকদের ব্যবসা ও দুরাবস্থার নানা দিক  তুলে ধরা হয়।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।