১৬ জুলাই, ২০১৯ | ১ শ্রাবণ, ১৪২৬ | ১২ জিলক্বদ, ১৪৪০


হজের প্রথম ফ্লাইট শুরু ৪ জুলাই

আগামী ৪ জুলাই থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের হজ ফ্লাইট শুরু হবে। শেষ হবে আগামী ৫ আগস্ট। এছাড়া হজের ফিরত ফ্লাইট শুরু হবে ১৭ আগস্ট। শনিবার (১১মে) এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান হজ এজেন্সিজ ‍অ্যাসোসিয়েশন (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম। বাংলাদেশের ওমরাহযাত্রী ও মধ্যপ্রাচ্যগামী অভিবাসীদের ফ্লাইটে তীব্র আসন সংকট ও দ্বিগুন ভাড়া বাড়ায় উদ্ভূত জটিলতা নিরসনে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে হাব।হজে যেতে প্রতারণা এড়াতে হাজীদের উদ্দেশ্যে হাব সভাপতি বলেন, কোনও মধ্যস্বত্তভোগীকে টাকা দেবেন না। হজে যেতে সরাসরি এজেন্সিতে এসে টাকা দিয়ে রশিদ সংরক্ষণ করবেন। অথবা এজেন্সির একাউন্টে টাকা জমা দিন।সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা থেকে সৌদিগামী ফ্লাইট বাড়ানোর জন্য বিমান বাংলাদেশের প্রতি অনুরোধ করা হয়। এছাড়া, বিদেশি এয়ারলাইন্সগুলোর ফ্লাইট বাড়ানোর জন্য সিভিল এভিয়েশনকে উদ্যোগ নিতে আহবান করেন হাব সভাপতি তসলিম।হজের আনুষ্ঠানিকতার দিন ছাড়া সারা বছর এখন উমরা হজে মানুষ যেতে পারেন জানিয়ে তিনি বলেন, উমরা যাত্রী অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে বেড়েছে। তবে, ফ্লাইট না পাওয়ায় প্রায় ২০ হাজার উমরা যাত্রীর উমরা অনিশ্চিত। যাদের হোটেল বুকিংয়ের টাকাও ক্ষতিগ্রস্ত হবে।শাহাদাত হোসাইন বলেন, ৪ জুলাই থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের হজ ফ্লাইট শুরু হবে। এ বছর হজে যাবেন এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন। এর মধ্যে ৬৩ হাজার ৫৯৯ জনকে পরিবহন করবে বিমান। এবার প্রথমবারের মতো ঢাকা থেকে মদিনায় যাবে ১১টি হজ ফ্লাইট। ফিরতি ফ্লাইট ১৭ আগস্ট থেকে শুরু হয়ে শেষ হবে ১৪ সেপ্টেম্বর।এ বছরই প্রথম ঢাকায় ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হবে হজ যাত্রীদের। ফলে সৌদি আরবে গিয়ে ইমিগ্রেশনের জন্য লাইনে দাঁড়াতে হবে না তাদের।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।