২৫ মে, ২০১৯ | ১১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ | ১৯ রমযান, ১৪৪০


৩য়-৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বাংলায় শতভাগ দক্ষ করার উদ্যোগ

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণির সব শিক্ষার্থীকে ২০২০ সালের মধ্যে বাংলায় শতভাগ দক্ষ করে তোলার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সারাদেশে ২১ লাখ নিরক্ষরকে সাক্ষরতার আওতায় আনাসহ মোট ১৭টি কর্মপরিকল্পনা হাতে নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। বৃহস্পতিবার সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেনের সভাপত্বিতে অনুষ্ঠিত এক সভায় এসব সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হয়। সভায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব আকরাম আল হোসেন, অতিরিক্ত সচিব গিয়াস আহমেদ, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক এ এফ এম মঞ্জুর কাদিরসহ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন দফতর-উইং প্রধান উপস্থিত ছিলেন।সভার কয়েকজন কর্মকর্তা জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকীতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় বেশ কয়েকটি কর্মপরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। এসব কর্মপরিকল্পনার মধ্যে রয়েছে– ২০২০ সালের ৩১ আগস্টের মধ্যে দেশের সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের বাংলা পড়া, লেখা, শোনা ও বলার ওপর শতভাগ দক্ষ করে তোলা।এছাড়া উপআনুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর মাধ্যমে দেশের ২১ লাখ নিরক্ষর মানুষকে সাক্ষরতা দান করা হবে। ২০২০ সালের ৩১ অক্টোবর প্রাথমিক শিক্ষার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট শিক্ষক, কর্মচারী এবং কমকর্তাদের সমন্বয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে জাতীয় পর্যায়ে ঢাকায় সমাবেশের আয়োজন করা হবে।কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ী, একই বছরের ১৯ মার্চ বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলার আয়োজন, শিক্ষা সপ্তাহ পালন, ৮ সেপ্টেম্বর আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস উদযাপন, সেমিনার/সিম্পোজিয়াম, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু বুক কর্নার ও শহীদ মিনার স্থাপন, স্টুডেন্টস কাউন্সিল, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, চিত্রাঙ্কন, রচনা ও ভাষণ প্রতিযোগিতা আয়োজন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশের প্রাথমিক শিক্ষার অর্জন নিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তুলে ধরতে ঢাকায় একটি আন্তজার্তিক সেমিনারের আয়োজন করা হবে।জানতে চাইলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আকরাম আল হোসেন বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আমরা নানামুখী কর্মপরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। ২০২০ সালের মধ্যে এসব কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে।’তিনি জানান, সম্প্রতি বিশ্বব্যাংকের দেয়া প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা বাংলা, ইংরেজি ও অংক করতে পারে না। সেটিকে আমলে নিয়ে প্রথম ধাপে শিক্ষার্থীরা যাতে বাংলার ওপর শতভাগ জ্ঞানার্জন করতে পারে সেই লক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নেয়া হবে। পাশাপাশি ইংরেজি বিষয়েও যাতে দুর্বলতা কাটিয়ে লিখতে ও পড়তে পারে সেই বিষয়ে গুরুত্ব দেয়া হবে।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।