২৪ জুলাই, ২০১৯ | ৯ শ্রাবণ, ১৪২৬ | ২০ জিলক্বদ, ১৪৪০


থাইল্যান্ডের নতুন প্রধানমন্ত্রী সাবেক সেনাপ্রধান প্রায়ুথ

থাইল্যান্ডের সাবেক সেনাপ্রধান প্রায়ুথ চান-ওচা দেশটির ২৯তম প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন। এর আগে সামরিক এই জান্তা নির্বাচিত সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করেছিলেন।গত ২৪ মার্চ থাইল্যান্ডে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এর প্রায় ১০ সপ্তাহ পর পার্লামেন্ট নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করলে।প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য উভয়কক্ষের যৌথ অধিবেশনে ৩৭৫ ভোট প্রয়োজন ছিল তার। বুধবার পার্লামেন্টের ওই ভোটাভুটির পর পাঁচ বছরের জন্য তিনি থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হলেন।জান্তা সরকারের অধীনেই থাইল্যান্ডে নতুন সংবিধান প্রণীত হয়। সেখানে বলা হয়, সংসদের উচ্চকক্ষের ২৫০ আসনের সাংসদ কারা হবেন- তা সেনাবাহিনীই ঠিক করে দেবে।পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে সাবেক ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী থাকসিন সিনাওয়াত্রার পুয়ে থাই পার্টির সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে। তাই সেখানে তিনি সুবিধা করে উঠতে পারবেন না তা অনেকটা অনুমেয়ই ছিল। ফলে মূলত উচ্চকক্ষের সমর্থন নিয়েই তিনি প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন।এদিকে তিন বছর আগে জান্তা সমর্থকদের দাবির মুখে নির্বাচনের নিয়ম জটিল হয়ে যায়। সেই নিয়মের সঙ্গে তাল মেলাতে ফলাফল ঘোষণায় দেরি হয়। এছাড়া কমিশন থেকে পুরো ভোট গণনায় একাধিকবার ত্রুটি দেখা দেয়। এ দুটি কারণের বাইরে অনেকে ‘ষড়যন্ত্র’ দেখছিলেন।উল্লেখ্য, ২০১৪ সাল থাকসিন সিনাওয়াত্রার বোন ইংলাক সিনাওয়াত্রাকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করেন প্রায়ুথ চান-ওচা। তার অধীনেই থাইল্যান্ডে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।