২০ জুলাই, ২০১৯ | ৫ শ্রাবণ, ১৪২৬ | ১৫ জিলক্বদ, ১৪৪০


মাতারবাড়ীর মিয়াজী পাড়া টু বলির পাড়া সড়কটি বেহাল দশায় পরিণত

মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ী ইউনিয়নের মিয়াজী পাড়া ও বলির পাড়া সড়কটি বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। এটি সৈকত সড়ক হিসাবে পরিচিত। সড়কটি ১০ বছর ধরে সংস্কার ও উন্নয়নের অভাবে বর্তমানে চলাচলের অনুপযোগি হয়ে পড়ছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। গাড়ী চলছে হেলে দুলে। ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের প্রায় ৫ হাজার মানুষকে নিত্যদিন চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এতে বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছে স্কুল ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা। ২০০৫ সালের দিকে সাবেক এমইউপি সদস্য মোঃ আব্দুল বারেক সড়কটি সংস্কার করেছিল। দীর্ঘদিন সড়কটি পুরাতন হয়ে ভেঙ্গে নষ্ট হয়ে গেলে ও সড়ক সংস্কার কাজে কারো নজর পড়েনি। এর পর থেকে স্থানীয় এলাকাবাসী মাটি ভরাটের কাজ করছে কিছু অংশে। মাতারবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্র জাহেদ হোসাইন ও দশম শ্রেণীর ছাত্র সিরাতুল মোস্তাকিম বলেন, প্রতিবছর বর্ষা মৌসুমে আমাদের গ্রামের শিক্ষার্থীরা সড়ক দিয়ে যাতায়াতের জন্য খুবই দুষ্কর হয় পড়ে। কোমর পরিমান পানির উপর দিয়ে স্কুলে যেতে হয়। রাস্তায় বসানো অর্ধেক ইট দু’ ধারে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। অর্ধেকের বেশি রয়েছে কাঁচা রাস্তা। যেন রাস্তার অস্তিত্ব ও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা। মাতারবাড়ী সাবেক এমইউপি সদস্য বশির আহমদ জানান, সরকারের ২ টি মেগা প্রকল্পের মধ্যে একটি উত্তর প্রান্তে হচ্ছে। উক্ত প্রকল্পে সড়ক দিয়ে যাতায়াতে সুবিধা হবে। তিনি আরো জানান, পরিকল্পিত ভাবে উন্নয়ন না হওয়ায় সুষ্ঠ তদারকির অভাবে এবং প্রশাসনের চরম ব্যর্থতার কারনে গ্রামীণ জনপদের গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি উন্নয়নেরর ছোঁয়া লাগছেনা। জরুরী ভিত্তিতে সড়কটি মেরামত অতি জরুরী। মাতারবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাস্টার মোঃ উল্লাহ বলেন, পরিষদের বরাদ্দ থেকে মাতারবাড়ীর বিভিন্ন সড়কের কাজ চলতেছে। তবে ঐ সড়কটির ব্যাপারে আমার নজর রয়েছে। বরাদ্দ হাতে আসলে কাজ শুরু করা হবে।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।