২২ জুলাই, ২০১৯ | ৭ শ্রাবণ, ১৪২৬ | ১৭ জিলক্বদ, ১৪৪০


সাতকানিয়ায় মেয়েকে ধর্ষণ করে কারাগারে গেলেন পিতা

দক্ষিণ চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় নিজের মেয়েকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগে মো. মোস্তফা (৫৫) নামের এক রিকশা চালককে আটক করেছে পুলিশ।শুক্রবার (২৮ জুন) রাতে উপজেলার ছদাহা সৈয়দাবাদ এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। তিনি ওই এলাকার মৃত আব্দুল ছোবহানের ছেলে।এ ঘটনায় মেয়েটির বড় বোন বাদী হয়ে রাতে থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ নির্যাতিত মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান-ষ্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠিয়েছে।মেয়েটির বড় বোন জানান, ১৩ বছর আগে তাদের মা মারা যায়। মা বেচে থাকা অবস্থায় অসুস্থ হলে বাবা আরেকটি বিয়ে করেন। পরে সেই সৎ মা’ও মারা যায়।তাদের দু’বোনের বিয়ে হয়েছে। ছোট ভাই-বোনদের নিয়ে বাবা বাড়িতে থাকেন। বেশ কিছুদিন ধরে তাদের আচরণে সন্দেহ হলে বিষয়টি দেখার জন্য প্রতিবেশীদের বলে রাখি আমি। শুক্রবার রাতে বাবা আমার বোনকে ধর্ষণের চেষ্টা করলে স্থানীয়রা তাকে হাতে নাতে ধরে ফেলে। ঘটনাটি স্থানীয় লোকজন থানা পুলিশকে খবর দেন।পুলিশ এসে জিজ্ঞাসাবাদ করলে উভয়ে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন এবং বাবাকে পুলিশের কাছে সোর্পদ করেন স্থানীয় লোকজন।বাদী আরও জানান, বিগত ছয় মাস ধরে চাপের মুখে ফেলে অশ্লীল ভিডিও দেখিয়ে একাধিক বার বোনকে ধর্ষণ করে বাবা। মাঝখানে সেই তিন মাসের অন্তঃসত্তা হলে আমি তার কাছে জানতে চাইলে বোন বিষয়টি গোপন রেখে গর্ভপাত করে পেলেন। বেশ কয়েকদিন আগে বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি জানতে চাইলে বাবা আমার সাথে রেগে গিয়ে তার বাড়ি থেকে চলে যেতে বলেন।সাতকানিয়া থানার (ওসি) তদন্ত জানান, সিনেমা ও পর্নো ভিডিও দেখানোর মাধ্যমে ধর্ষণ করার প্রাথমিক কাজ শুরু করেন। পরে বিভিন্ন সময়ে রাতের বেলায় নিজ মেয়েকে ধর্ষণ করে ওই ব্যক্তি। এ ঘটনায় মেয়েটির বড় বোন বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। নির্যাতিত মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওয়ান-ষ্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠানো হয়েছে।সাতকানিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সফিউল কবীর জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মোস্তফা নিজের মেয়েকে ধর্ষণের দায় স্বীকার করেছেন। রাতে মামলা দায়েরের পর শনিবার সকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।