২০ জুলাই, ২০১৯ | ৫ শ্রাবণ, ১৪২৬ | ১৫ জিলক্বদ, ১৪৪০


রামুর  বাকঁখালী নদীতে অবৈধ ভাবে বালি তোলার  মেশিন  ও পাইপলাইন ধ্বংস

রামু উপজেলার দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের বাকঁখালী নদীতে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করার  মেশিন ও পাইপলাইন ধ্বংস করে দিয়েছে রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রণয় চাকমা।রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণয় চাকমা জানান, ৩০ জুন দুপুর ১ টায় দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের বাকঁখালী নদীতে অবৈধ ভাবে বালু তোলার সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন।এ সময় প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে বালু খেকোরা পালিয়ে গেলে ও অবৈধ ভাবে বালি তোলার মেশিন ও পাইপলাইন ধ্বংস করে দেন।রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণয় চাকমা আরো জানান, রামু উপজেলার কোথাও অবৈধ ভাবে বালি উত্তোলন করার খবর পেলে তাৎক্ষণিক অভিযান চালানো হবে।এ ব্যাপারে রামুর সচেতন মহলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।অপরদিকে গর্জনিয়া ইউনিয়নের বাকঁখালী বালু মহাল এবং গর্জই নদী ও কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের ছোটজামছড়ি নদীর বালি মহাল থেকে প্রকাশ্য দিবালোকে শ্রমিক দিয়ে বালি উত্তোলন করে রাতের আধাঁরে নাইক্ষ্যংছড়ি সহ নানা স্থানে  পিকআপ ও ট্রলি দিয়ে বালি পাচার করে যাচ্ছে বালি খেকো গডফাদার  আবদুল্লাহর নেতৃত্বে অসাধু একটি সংঘবদ্ধ চক্র। এব্যাপারে আইনী এ্যাকশন নেওয়ার দাবী জানিয়েছেন পরিবেশ বাদী মহল।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।