১৪ অক্টোবর, ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন, ১৪২৬ | ১৪ সফর, ১৪৪১


বিবিএন শিরোনাম
  ●  র‌্যাবের সঙ্গে গোলাগুলিতে যুবলীগ নেতা নিহত   ●  নাইক্ষ্যংছড়ির তিন ইউপির ভোট আজ : বহিরাগত ঠেকাতে বারটি তল্লাশিচৌকি   ●  কক্সবাজারে শতাধিক বৌদ্ধ বিহারে প্রবারণা উৎসব শুরু   ●  আলীকদমে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ২, আহত ১৩   ●  মহেশখালীতে জাতীয় দুর্যোগ প্রশমন দিবস উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্টিত   ●  আঘাত হেনেছে প্রলয়ঙ্করী টাইফুন, নিহত ১১   ●  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের কাজ করবে সেনাবাহিনী- কক্সবাজারের সেনাপ্রধান   ●  যুবলীগের প্রত্যেককে ভালো মানুষ ও ভালো নেতা-কর্মী হতে হবে : সোহেল আহমদ বাহাদুর   ●  রোহিঙ্গাদের যারা ভোটার করবে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে : অতিরিক্ত সচিব   ●  যুক্তরাষ্ট্রের ব্রুকলিনে বন্দুক হামলা, নিহত ৪

ঈদগাঁওতে টমটম চালককে গুলি করে হত্যাঃ অস্ত্রসহ সাবেক সেনা কর্মকর্তার পুত্র ঘাতক আটক 

কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁওতে গুলিবিদ্ধ নুরুল হক নুরু(৩৫) নামের যুবকের লাশ স্থানীয়দের সহায়তায় পুলিশ উদ্ধার করেছে। নিহত যুবক ইসলামপুর ইউনিয়নের ৪ নং নম্বর ওয়ার্ডের মাঝের পাড়া গ্রামের আব্দুস ছবির ছেলে। সে দুই সন্তানের জনক। ২১ সেপ্টেম্বর রাত সোয়া দশটার দিকে ঈদগাঁও ইউনিয়নের দক্ষিন মাইজ পাড়ার এক বাড়ির আঙ্গিনা থেকে লাশটি উদ্ধার করে। স্থানীয় লোকজন ও লাশ উদ্ধারস্থলের বসতভিটা মালিক শামসুল আলমের কন্যা খতিজা জানান, স্থানীয় চিহ্নিত কয়েক যুবক তাদের বসতভিটায় প্রবেশ করে অপরিচিত এক যুবককে গুলি করে হত্যা করে। এ সময় তারা প্রতিবাদ করলে তাদের ভয় না করার অভয় দিয়ে লাশটি সিএনজিতে তোলার চেষ্টা করে । ঈদগাঁও পুলিশের আইসি আসাদুজ্জামানের নেতৃত্বে তদন্ত কেন্দ্রের সকল অফিসার ও সদস্যরা    ঘটনাস্থল পৌঁছে জনতার সহায়তায় জোহান (৩৩) নামের একজনকে আটক করে।এসময় দুইটি মোটর বাইক, একটি সিএনজি ও আরেকটি টমটম জব্দ করে পুলিশ। পরে তার স্বীকারোক্তিতে অবৈধ একটি এলজি উদ্ধার করে। আটক জোহান সাবেক সেনা কর্মকর্তা লে.কর্নেল এহছানুল্লাহর জৈষ্ঠ পুত্র বলে জানা গেছে।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন ঈদগাঁও আইসি আসাদুজ্জামান বলেন প্রধান খুনিকে অস্ত্রসহ আটক করা হয়েছে। জেলা পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসছেন। ইসলামপুর ইউনিয়ন ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার আব্দুস শুকুর ঘটনাস্থলে নিহতের পরিচয় নিশ্চিত করেন এ প্রতিবেদককে। উক্ত এলাকার কিছু যুবক কতিপয় লোকজনের আশকারায় মরন নেশা ইয়াবা পাচার করে আসছিল। স্থানীয়দের ধারণা এর জেরে এ খুনের ঘটনা ঘটতে পারে। তবে পুলিশ প্রকৃত রহস্য উদঘাটন ও অপরাপর ঘাতকদের আটকে অভিযান চালাচ্ছে বলে জানিয়েছে।অপর দিকে নিহতের এলাকার লোকজন জানান, ছেলেটি ভদ্র নম্র এবং ভাল বলে বেশ পরিচিত ।কারো সাথে কোন শত্রুতা ছিল না। স্ত্রীর সাথে মাঝে মধ্যে মনোমালিন্য হত বলে জানান মেম্বার আবদু শুক্কুর। তবে কয়েকবার তিনি সালিশও করে দিয়েছিলেন ।     রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সদর সার্কেল আদিবুল ইসলাম, ওসি ফরিদ উদ্দীন খন্দকার, ওসি তদন্ত খায়রুজ্জামান ঈদগাহ তদন্ত কেন্দ্রে অবস্থান করেছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।





আপনার মতামত লিখুন :