২১ অক্টোবর, ২০১৯ | ৫ কার্তিক, ১৪২৬ | ২১ সফর, ১৪৪১


বিবিএন শিরোনাম

বহুমূখী ধান্দাবাজিতে নেতাকর্মীরা:

ঈদগাঁওতে রাতারাতি গজিয়ে উঠেছে একাধিক ভুঁইফোড় মানবাধিকার ও রাজনৈতিক সংগঠন

কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁওতে রাতারাতি গজিয়ে উঠেছে একাধিক ভুঁইফোড় মানবাধিকার ও আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন নামের কয়েকটি সংস্থা।রকমারি নামের এসব মানবাধিকার ও ভুঁইফোড় রাজনৈতিক সংস্থার কার্যক্রম নিয়ে জনমনে দেখা দিয়েছে সন্দেহ। বেকার শ্রেণীর কতিপয় যুবক মানবাধিকার, আওয়ামীলীগের ব্যানারে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রীর ছবি সংযুক্ত সহযোগী সংগঠনের নাম ভাঙ্গিয়ে বহুমুখী ধান্দাবাজিতে নেমে পড়েছে। গলায় কার্ড ঝুলিয়ে রীতিমত ডুলকিচালে বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী অফিস ও সেবাদানকারী সংস্থা বিশেষ করে বৃহত্তর ঈদগাঁওয়ের ৬ ইউনিয়নের গ্রাম আদালত এবং ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র, ভুমি অফিস, বন বিভাগ, পল্লী বিদ্যুৎ অফিস যে কোন বিষয় নিয়ে এরা উপস্থিত থাকে। এদের অনেকেই আবার স্ব-ঘোষিত মানবাধিকার কর্মী। অনেকেই আবার স্ব নির্বাচিত উপজেলা সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সহ সম্পাদক, বিশেষ সম্পাদক, অতিরিক্ত সম্পাদক, আপতকালিন সম্পাদক, ল্যাটিন বিষয়ক সম্পাদক ইত্যাদি রকমারি পদবী সম্বলিত কার্ড বানিয়ে ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন সালিশ বিচারের বৈঠক ও মামলার তদন্তে নাক গলিয়ে বাদী-বিবাদী উভয় পক্ষ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে কতিপয় নেতারা। আবার ট্রাফিক পুলিশ কর্তৃক জব্দকৃত বিভিন্ন যানবাহন ছেড়ে নিতেও দৌড়ঝাপ শুরু করে এই ভুঁইফোড় সংগঠনের নেতারা। এদের এমন কর্মকান্ডের বৈধতা সম্পর্কে কেউ প্রশ্ন তুললেই পকেট থেকে কার্ড বের করে শাসিয়ে দেয়। পাশাপাশি এলাকার বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষকে মানবাধিকার ও আওয়ামীলীগের ভুঁইফোড় সংগঠনের সদস্য পদ ও পরিচয়পত্র দেয়ার নাম করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে । সম্প্রতি পোক খালীর সিকদার পাড়া এলাকার নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক এক যুবক জানান, তথাকথিত এক মানবাধিকার সংস্থার কর্মী নামধারী কতিপয় যুবক মানবাধিকার সংস্থার সদস্য হওয়ার জন্য তাকে প্রলুব্ধ করে। এতে লাভ কি হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন,মানবাধিকার সংস্থার সদস্য হলে নাকি অনেক সুবিধা,এমনকি সব সরকারি অফিস আদালতে ভাল সম্মান পাওয়া যায়।এতে আগ্রহী হয়ে ঐ যুবক মানবাধিকার সংস্থার সদস্য হতে চাইলে কার্ড দেওয়ার নাম করে তার কাছ থেকে ১ হাজার টাকা দাবী করে মানবাধিকার কর্মী নামধারী কতিপয় ঐ যুবক। এভাবেই মানবাধিকার ও আওয়ামীলীগের ব্যানারে কয়েকটি ভুঁইফোড় সংগঠনের নামে ধান্দাবাজির জালবিস্তার করেছে এরা। নাম প্রকাশ না করার শর্তে ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের একজন অফিসার জানান, এসব ভুঁইফোড় সংগঠনের নেতা কর্মীদের তদবির, বিচার সালিশে এসে প্রভাব খাঁটানোর চেষ্টায় থাকে। তাদের কারণে দৈনন্দিন কাজ গুলো করতেও কষ্ট হচ্ছে। এসব মানবাধিকার ও আওয়ামীলীগের ব্যানারে গজে উঠা ভুঁইফোড় সংগঠন নামে মানুষ হয়রানি বন্ধের দাবী জানিয়েছেন বৃহত্তর ঈদগাঁওবাসী।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।





আপনার মতামত লিখুন :