২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ৮ আশ্বিন, ১৪২৬ | ২৩ মুহাররম, ১৪৪১


বিবিএন শিরোনাম
  ●  কক্সবাজারের চেহারা পাল্টে যাবে: ওবায়দুল কাদের   ●  জাতিসংঘের সাধারণ সভায় যোগ দিতে নিউ ইয়র্কে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী   ●  পাকিস্তানে ভয়াবহ দুর্ঘটনায় নিহত ২৬   ●  সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোরের মাধ্যমে কংক্রিটের ব্লক দিয়ে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করতে হবে   ●  ঈদগাঁওতে টমটম চালককে হত্যাঃ প্রতিবাদে শ্রমিকলীগের মানববন্ধন   ●  ঈদগাঁওতে সন্ত্রাসীদের হাতে নিহত যুবকের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তরঃ পৃথক দুই মামলা   ●  রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না করে সরকারের পাশে থাকুন   ●  উখিয়া মাদক কারবারির বাড়ির মাল ক্রোক   ●  টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা দম্পতি নিহত   ●  ঈদগাঁওতে টমটম চালককে গুলি করে হত্যাঃ অস্ত্রসহ সাবেক সেনা কর্মকর্তার পুত্র ঘাতক আটক 

জেলা পরিষদ নির্বাচন: মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে প্রার্থীদের সরব উপস্থিতি

ddfকক্সবাজার জেলা পরিষদ নির্বাচনে দ্বিতীয় দিনের মতো মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই চলছে। এতে বিভিন্ন ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থীদের সরব উপস্থিতি লক্ষ করা গেছে।
তাদের সাথে ভোটার ও স্বজনরাও উপস্থিত রয়েছেন।
রবিবার (৪ডিসেম্বর) সকাল দশটা থেকে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে বাছাই কার্যক্রম শুরু হয়েছে।
এতে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও ভারপ্রাপ্ত রিটার্নিং অফিসার কাজি মো. আবদুর রহমান, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ মোজাম্মেল হোসেন, কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শিমুল শর্মা, চকরিয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার শাখাওয়াত হোসেন, মহেশখালী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. বেদারুল আলমসহ সংশ্লিষ্ট প্রার্থীরা উপস্থিত আছেন।
এতে ৯ নং ওয়ার্ডের প্রার্থী সোহেল জাহান চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা সংক্রান্ত অভিযোগ উত্তাপিত হলেও তা প্রমাণিত হয়নি।
দুপুর পর্যন্ত কোন প্রার্থীর আবেদন বাতিল হয়নি বলে জানা গেছে।
এর আগের দিন শনিবার দুই চেয়ারম্যান ও সংরক্ষিত আসনের প্রার্থীসহ সাধারণ ৫টি ওয়ার্ডের মনোনয়নপত্র বাছাই সম্পন্ন হয়।
এদিন সাধারণ সদস্য পদে ৭ জনের প্রার্থীতা বাতিল করেছে নির্বাচন কমিশন।
বাছাইয়ের প্রথম দিনেই টিকে যান চেয়ারম্যান পদে দুই হেভিওয়েট প্রার্থী এ.এইচ সালাহউদ্দিন মাহমুদ ও মোস্তাক আহমদ চৌধুরী এবং সংরক্ষিত ৫টি আসনের সব প্রার্থী।
সদস্য পদে বাতিল প্রার্থীরা হলেন- ১ নং ওয়ার্ডের মনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী (মুকুল), ২ নং ওয়ার্ডের জাফর আলম, ৩ নং ওয়ার্ডের সিরাজ মিয়া, ৪ নং ওয়ার্ডের এস.এম. গিয়াস উদ্দিন, জাহাঙ্গীর আলম, মোঃ ইকবাল এবং ৫ নং ওয়ার্ডের কমর উদ্দিন।
তারা বিভিন্ন সময় ব্যাংকের কাছ থেকে ঋণ নিয়েও পরিশোধ করেননি। ফলে ব্যাংকের তালিকায় তাঁরা ঋণ খেলাপী।
মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া প্রার্থীরা আগামী ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনারের কাছে আপীল করতে পারবেন। সেখানে বাতিলকৃত মনোনয়নপত্র টিকে গেলে আসন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। আর বাতিল হলে একমাত্র উচ্চ আদালতের সিদ্ধান্ত তাঁদের নির্বাচনে অংশগ্রহণে সহায়ক ভূমিকা পালন করতে পারবে। আজ রবিবার (৪ ডিসেম্বর) দ্বিতীয় দিনের মতো মনোনয়নপত্র বাছাই হবে। এরপরই জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীদের বিষয়ে স্পষ্ট হবে।
আগামী ১১ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন।
১২ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ এবং ২৮ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণ।
গত ১ ডিসেম্বর মনোনয়পত্র জমাদানের শেষ দিনে দুইজন চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ৯৩ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। সেখানে সদস্য পদে ৭১ জন ও সংরক্ষিত পদে ২০ নারী সদস্য ছিল। চেয়ারম্যান পদে ‘স্বতন্ত্র প্রার্থী’ হিসেবে নির্বাচন করছেন সাবেক এমপি ও জেলা পরিষদ প্রথম চেয়ারম্যান এ.এইচ সালাহউদ্দিন মাহমুদ। অন্যদিকে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচন করছেন বর্তমান জেলা পরিষদ প্রশাসক ও সাবেক এমপি মোস্তাক আহমদ চৌধুরী। রাজনৈতিক-সামাজিক বিবেচনায় দুই প্রার্থীই শক্তিশালী। কারো চেয়ে কেউ কম নন। ২৮ ডিসেম্বর ভোটাররাই জানিয়ে দেবে কে চেয়ারে বসার যোগ্য।
সংরক্ষিত আসনে যারা বৈধতা পেয়েছেন তারা হলেন:
সংরক্ষিত ওয়ার্ড নং- ০১: প্রীতি কণা শর্মা, শিরীন ফরজানা, মশরফা জান্নাত।
ওয়ার্ড নং- ০২: মোছাম্মদ উম্মে কুলসুম, আসমা উল হোসনা, জাহানারা পারভীন, মর্জিনা বেগম, সৈয়দা নিঘাত আমিন।
ওয়ার্ড নং- ০৩: শাহানা বেগম, আনোয়ারা বেগম, ফিরোজা বেগম, লুৎফুন্নাহার, রেহেনা খানম।
ওয়ার্ড নং- ০৪: হামিদা তাহের, তাহমিনা চৌধুরী লুনা, শাহেনা আকতার, রোমেনা আক্তার।
ওয়ার্ড নং- ০৫: আশরাফ জাহান কাজল, সানজিদা বেগম, আশরাফুন নেছা রিপা।
সাধারণ সদস্য পদে ১ম দিনের বাছাইয়ে যারা টিকে গেছেন তারা হচ্ছেন:
ওয়ার্ড নং- ০১: মো: জাহেদুল ইসলাম ফরহাদ, মিজানুর রহমান, আহমদ উল্লাহ। ওয়ার্ড নং- ০২: মুঃ কামাল উদ্দীন, মোঃ রুহুল আমিন, লুৎফুর রহমান, মোহাম্মদ ইকবাল চৌধুরী। ওয়ার্ড নং-০৩: মোস্তফা আনোয়ার, আনোয়ার পাশা চৌধুরী, মুহাম্মদ আইয়ুবুর রহমান, শহিদুল ইসলাম মুন্না, আজিজুল হক (আজিজ)। ওয়ার্ড নং- ০৪: রিয়াজ খান রাজু, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, এ.টি.এম জায়েদ মোর্শেদ, আবুল কাশেম, মোঃ তারেক ছিদ্দিকী, মেহেদী হাসান, আবু হেনা মোস্তফা কামাল। ওয়ার্ড নং- ০৫: জহির হোছাইন, মোহাম্মদ বদরুদ্দোজা, এ.টি.এম.জিয়াউদ্দীন চৌধুরী জিয়া, ফিরোজ আহমদ চৌধুরী, এস.এম. জাহাঙ্গীর আলম বুলবুল, মাহবুব রহমান।
দ্বিতীয় দিনের মতো জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অবশিষ্ট ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্যদের আজ বাছাই চলবে।
ওয়ার্ডসমূহে যারা প্রার্থী রয়েছেন তারা হচ্ছেন- ওয়ার্ড নং- ০৬: এম আজিজুর রহিম, মোঃ আবু তৈয়ব, আকতার আহমদ, নুরুল আমিন চৌধুরী। ওয়ার্ড নং- ০৭: জাহেদুল ইসলাম, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, আবদুর রহিম, মোজাফ্ফর হোসেন পল্টু, খলিলুর রহমান, মোহাম্মদ ওয়ালিদ। ওয়ার্ড নং- ০৮: মোঃ শাহনেওয়াজ তালুকদার, মোক্তার আহাম্মদ চৌধুরী, আ.ন.ম. আমিনুল এহেছান, মোহাম্মদ ওমর ফারুক, সোলতান আহামদ। ওয়ার্ড নং- ০৯: সোহেল জাহান চৌধুরী, মোঃ আরিফুল ইসলাম, মোঃ জুনায়েদ কবির, মঞ্জুরুল হক চৌধুরী, মিজানুল হক। ওয়ার্ড নং- ১০: মোঃ রুহুল আমিন সিকদার, মাহমুদুল করিম মাদু, মোঃ নুরুজ্জামান, উজ্জল কর, শামসুল আলম, রফিক উদ্দীন। ওয়ার্ড নং- ১১: শামশুল আলম মন্ডল, পলক বড়ুয়া। ওয়ার্ড নং- ১২: মুহাম্মদ মুহিববুল্লাহ, শামসুল আলম। ওয়ার্ড নং- ১৩, নুরুল হক, আবদুর রহিম, রাহামত উল্লাহ। ওয়ার্ড নং- ১৪: মোঃ খাইরুল আমিন, হুমায়ুন কবির চৌধুরী, খোরশিদা বেগম, ওয়ার্ড নং- ১৫: জহির হোসেন, মোহাম্মদ শফিক মিয়া।

সিবিএন:

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।





আপনার মতামত লিখুন :