১৯ আগস্ট, ২০১৯ | ৪ ভাদ্র, ১৪২৬ | ১৭ জিলহজ্জ, ১৪৪০


প্যারিসের হোটেলে মদ্যপান করে ধর্ষণ, অবশেষে মুখ খুললেন নেইমার

কোপা আমেরিকা শুরু হওয়ার মাত্র কয়েকদিন বাকি। এর মধ্যেই বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার। গত প্যারিসের একটি হোটেলে মদ্যপ অবস্থায় এক তরুণীকে ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। যদিও নেইমার তার বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ১৫ মে প্যারিসে রাত ৮টায় নেইমার এমন কীর্তি করেন। হোটেলে মাতাল অবস্থায় তরুণীর অসম্মতিতে শারীরিক নির্যাতন করেন। যদিও ধর্ষণে অভিযোগকারিনীর নাম জানা যায়নি।এরপরই মুখ খুলেছেন সেলেকাও সুপারস্টার। এক ভিডিও বার্তায় তিনি দাবি করেন, তাকে হেনস্থা করতেই আইনজীবীর মাধ্যমে এমন অভিযোগ তোলা হয়েছে। একই অভিযোগে কিছুদিন আগেও বিদ্ধ হতে হয়েছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে। ক্যাথরিন মায়োরগা নামের এক মার্কিন মডেল জার্মানির এক পত্রিকায় বিস্ফোরক অভিযোগ জানান। মহাতারকা ফুটবলারের নামে সেই মামলা এখনও চলছে।যাইহোক, নেইমার নিজের ভিডিও বার্তার পাশাপাশি তার এজেন্সির ওয়েবসাইটেও এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, অভিযোগ মোটেও সত্য নয়। সেখানে লেখা হয়েছে, “সংবাদটি নিয়ে অবাক হলেও ঘটনাটি ফুটবলার এবং তার অধীনস্থ কর্মীরা আগে থেকেই জানতেন। কয়েকদিন আগে তিনি সাও পাওলোতে একজন আইনজীবী দ্বারা জোড়াজুড়ির শিকার হন, যিনি বলেছিলেন, তিনি অভিযুক্তের স্বার্থের প্রতিনিধিত্ব করেছেন।”পাশাপাশি আরও জানানো হয়, “পুরো ঘটনা সম্পর্কে ফুটবলারদের আইনজীবীদের অবহিত করার পরেই যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আমরা পুরোপুরি অন্যায় ও নেতিবাচক সংবাদ প্রকাশের অপব্যবহার এবং সর্বোপরি অপব্যবহারকে প্রত্যাখ্যান করছি।” জানা গেছে, ইনস্টাগ্রাম মেসেজের মাধ্যমে দু-জনের পরিচয় হয়। নেইমারের এক বন্ধু ওই তরুণীকে প্যারিসের প্লেনের টিকিটও বুক করে দেন। তারপর প্যারিসেই দেখা হয় দুজনের।

 

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।





আপনার মতামত লিখুন :