২২ আগস্ট, ২০১৯ | ৭ ভাদ্র, ১৪২৬ | ২০ জিলহজ্জ, ১৪৪০


বিবিএন শিরোনাম
  ●  ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত করা হবে : প্রধানমন্ত্রী   ●  মিয়ানমারে বিদ্রোহীদের হামলায় ৩০ সেনা নিহত   ●  মাতামুহুরী নদী থেকে দুই হাজার মিটার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল জব্দ   ●  চৌফলদন্ডীতে পুলিশের উপর হামলা করে ইয়াবা ব্যবসায়ী ছিনতাই, আহত ২   ●  ঈদগাঁওতে সৌদিয়া পরিবহনের ধাক্কায় বৃদ্ধ নিহত   ●  জালালাবাদ থেকে দুই ইয়াবা ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ   ●  চকরিয়ায় সার্ফারী পার্কে প্রশিক্ষিত হাতির আঘাতে মাহুত নিহত   ●  বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডের প্রধান আসামী জিয়াউর রহমানকে ইতিহাস ক্ষমা করেনি-এমপি কমল   ●  আজ ভয়াল একুশে আগস্ট   ●  পদত্যাগ করছেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী!

বদির জামিন ঠেকাতে আপিলে দুদক

বিবিএন ডেস্ক:

নিম্ন আদালতে তিন বছর দণ্ডপ্রাপ্ত কক্সবাজার-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদিকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগে আবেদন করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান দ্য রিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

bodi14416920432016111512165920161116144210এর আগে বুধবার (১৬ নভেম্বর) বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুসের একক হাইকোর্ট বেঞ্চ কারাদণ্ডের বিরুদ্ধে বদির করা আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করে ৬ মাসের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দেন। একইসঙ্গে তাকে ১০ লাখ টাকা জরিমানার রায় স্থগিত করেন হাইকোর্ট।

এর আগে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ থেকে বিচারিক আদালতে আবদুর রহমান বদিকে দেওয়া খালাসের রায়ের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) একইদিনে হাইকোর্টে আপিল করে দুদক।

গত ২০১৪ সালের ২১ আগস্ট এমপি আবদুর রহমান বদির বিরুদ্ধে রমনা থানায় সম্পদের তথ্য গোপন ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলাটি করেন দুদকের উপ-পরিচালক আবদুস সোবহান।

গত ২ নভেম্বর এই মামলায় ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহম্মেদ জমাদ্দার তথ্য গোপনের অভিযোগে বদিকে ৩ বছরের কারাদণ্ড ও ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেন। জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদণ্ড দেন আদালত। তবে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় অভিযোগ থেকে তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

২০০৮ ও ২০১৩ সালে নির্বাচন কমিশনে দাখিল করা সম্পদ বিবরণীকে সূত্র ধরে বদির বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছিল। মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া হলফনামায় বদি জ্ঞাত আয় বহির্ভূত ১০ কোটি ৮৬ লাখ ৮১ হাজার ৬৬৯ টাকা মূল্যমানের সম্পদ গোপন করে মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন।

এছাড়া অবৈধভাবে অর্জিত সম্পদের বৈধতা দেখানোর জন্য কম মূল্যের সম্পদ ক্রয় দেখিয়ে ১ কোটি ৯৮ লাখ ৩ হাজার ৩৭৫ টাকা বেশি মূল্যে বিক্রি দেখিয়েছেন।

২০১৫ সালের ৭ মে দুদকের উপ-পরিচালক মো. মঞ্জুর মোর্শেদ আদালতে বদির বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন। ওই বছরের ৮ সেপ্টেম্বর ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহম্মেদ জমাদ্দার তার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন। অভিযোগ শুনানি শেষে গত ২ নভেম্বর ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহম্মেদ জমাদ্দারের আদালত এই মামলার রায় দেন।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।





আপনার মতামত লিখুন :