২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ৮ আশ্বিন, ১৪২৬ | ২২ মুহাররম, ১৪৪১


বিবিএন শিরোনাম
  ●  পাকিস্তানে ভয়াবহ দুর্ঘটনায় নিহত ২৬   ●  সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোরের মাধ্যমে কংক্রিটের ব্লক দিয়ে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করতে হবে   ●  ঈদগাঁওতে টমটম চালককে হত্যাঃ প্রতিবাদে শ্রমিকলীগের মানববন্ধন   ●  ঈদগাঁওতে সন্ত্রাসীদের হাতে নিহত যুবকের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তরঃ পৃথক দুই মামলা   ●  রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না করে সরকারের পাশে থাকুন   ●  উখিয়া মাদক কারবারির বাড়ির মাল ক্রোক   ●  টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা দম্পতি নিহত   ●  ঈদগাঁওতে টমটম চালককে গুলি করে হত্যাঃ অস্ত্রসহ সাবেক সেনা কর্মকর্তার পুত্র ঘাতক আটক    ●  চেয়ারম্যান-মেম্বারের শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধারণ ‘গুজব’   ●  শেখ হাসিনার অ্যাকশন শুরু, শুদ্ধি অভিযান সারাদেশে চলবে : কক্সবাজারে ওবায়দুল কাদের

বাংলাদেশ দেখিয়েছে ঘুরে দাঁড়ানোর সেরা উপায় উন্নয়ন: বিশ্বব্যাংকের সিইও

বিশ্বব্যাংকের সিইও ক্রিস্টালিনা জর্জিওভা বলেছেন, উন্নয়নই যে ঘুরে দাঁড়ানোর সেরা উপায় বাংলাদেশ তা করে দেখিয়েছে। দারিদ্র্য কমানো, মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি, নারীর ক্ষমতায়ন, জন্মহার নিয়ন্ত্রণসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রেই উল্লেখযোগ্য সফলতা দেখিয়েছে বাংলাদেশ।

বুধবার ঢাকার হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে ‘ঢাকা মিটিং অব দ্য গ্লোবাল কমিশন অন অ্যাডাপটেশন (জিসিএ)’-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। দু’দিনের সফরে বুধবারই ঢাকায় পৌঁছান জর্জিওভা। বাংলাদেশে এটিই তার প্রথম সফর।

স্বাধীনতার পর বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশের সাফল্যের প্রশংসা করে জর্জিওভা বলেন, বাংলাদেশ যখন স্বাধীন হয়, তখন তিনি হাই স্কুলে পড়তেন। তখন থেকেই তিনি বাংলাদেশে আসার স্বপ্ন দেখতেন।

তিনি বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে বাংলাদেশ যেভাবে সাফল্য অর্জন করেছে, তাতে তিনি মুগ্ধ। মানুষের মাথাপিছু আয় ১০০ ডলার থেকে বেড়ে ১৫০০ ডলার হয়েছে এবং ২০৩০ সালের মধ্যে দারিদ্র্যের হার তিন শতাংশে নামিয়ে আনার পথে ভালোভাবেই রয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশে জনসংখ্যার ঘনত্ব অনেক বেশি। দেশটি বিশেষত নারীর ক্ষমতায়নের মধ্য দিয়ে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার কমিয়ে আনতে পেরেছে।

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে ঝুঁকির মুখে থাকা দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ সামনের দিকে রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন বিশ্বব্যাংকের সিইও। তিনি বলেন, বাংলাদেশ যেহেতু জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে, তাই এখানকার মানুষকে কীভাবে সুরক্ষা দেওয়া যায়, সে উপায় বের করতেই ঢাকাতেই এই আয়োজন। নষ্ট করার মতো সময় এখন নেই। যদি মানুষের জানমাল রক্ষা করতে হয়, তাহলে অভিযোজন ক্ষমতা বাড়াতে হবে।

জর্জিওভা বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকির সূচকে ২০১৪ সালে বাংলাদেশ ছিল প্রথম স্থানে; কিন্তু এটি এমন একটি স্থান যেখানে পূর্ব সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নাগরিকদের নিরাপত্তা দিচ্ছে। জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি কীভাবে মোকাবেলা করতে হয়, তার অবিশ্বাস্য উদ্ভাবনী দক্ষতা বাংলাদেশ দেখিয়েছে।

রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়ায় বাংলাদেশের প্রশংসা করে তিনি বলেন, লাখ লাখ রোহিঙ্গা নাগরিককে আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ বিশ্বে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। নিজেদের অনেক সমস্যা থাকার পরও পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা নাগরিকদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ যে মানবিকতার দৃষ্টান্ত রেখেছে, তাতে তিনি অভিভূত। এ জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান। বাংলাদেশের উন্নয়নে সহযোগী হতে পেরে বিশ্ব ব্যাংক গর্বিত বলেও এ সময় মন্তব্য করেন তিনি।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।





আপনার মতামত লিখুন :