১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১ আশ্বিন, ১৪২৬ | ১৬ মুহাররম, ১৪৪১


বড় মহেশখালী থেকে বাল্যবিবাহ বন্ধ করলেন এসিল্যান্ড অংগ্যাজাই মারমা

মহেশখালী উপজেলার বড় মহেশখালী ইউনিয়নে বড়ডেইল গ্রামের আজিজুল হক ও কামরুন নাহারের কন্যা বড় মহেশখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী রিয়াজুন্নাহারের সাথে ২২ই আগস্ট বৃহস্পতিবার একই এলাকার মন্জুর আহমেদ ও শামশুন্নাহারের ছেলে জসীম উদ্দিনের বিয়ে হয়ে যাওয়া একটি বাল্য বিবাহ বন্ধ করে দিলেন মহেশখালী উপজেলার সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অংগ্যজাই মারমা। বৃহস্পতিবার তাদের বাল্য বিবাহ হয়ে যাওয়ার গোপনে সংবাদ পেয়ে মহেশখালী উপজেলার সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অংগ্যজাই মারমা সরেজমি পরিদর্শন করেন। এসময় বড় মহেশখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে গিয়ে তাদের ছাত্রী কিনা তা যাচায় করেন। যাচায় কালে বাল্য বিবাহ হতে যাওয়া রিয়াজুন নাহার অত্র বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী তার সত্যতা প্রমাণ পেয়ে ছাত্রীর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মা এবং মেয়েকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পরে বর জসিমের বাড়ীতে অভিযান চালানোর সময় বর, পিতা, মাতাসহ বাড়ীর সকলেই পলাতক থাকায় কাউকে আটক করা যায়নি। মহেশখালী উপজেলার সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অংগ্যজাই মারমা’ আদালতে বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টার সময় সার্বিক বিষয় আমলে নিয়ে বাল্য বিবাহ দিতে যাওয়ার দায়ে ছাত্রী রিয়াজুনাহারের পিতা আজিজুল হক কে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন । নগদ তা পরিশোধ করে বাড়ীতে ফিরে যায় বাল্য বিবাহ দিতে যাওয়া ছাত্রী ও অভিভাবকরা। বাল্য বিবাহ বন্ধ করতে মহেশখালী উপজেলার সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অংগ্যজাই মারমা’র সাথে ছিলেন মহেশখালী থানার এসআই মুজিবুল হকের নেতৃত্বে পুলিশের একটি ইউনিট।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।





আপনার মতামত লিখুন :

error: Content is protected !!