১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ৪ আশ্বিন, ১৪২৬ | ১৯ মুহাররম, ১৪৪১


বিবিএন শিরোনাম
  ●  ৯ থেকে ৩০ অক্টোবর উপকূলে মাছ ধরা নিষিদ্ধ   ●  রোহিঙ্গাদের পাসপোর্টে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী   ●  জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ   ●  টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই রোহিঙ্গাসহ নিহত ৩   ●  টেকনাফে জন্ম নিবন্ধন সনদ জালিয়াতির অভিযোগে উদ্যোক্তা সহ আটক ২   ●  পেকুয়ায় ভাড়া বাসা থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার   ●  চকরিয়ায় বন্ধুর ছোটবোনকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার   ●  ৩৬ ঘন্টায় বিশ্বজুড়ে ছড়াতে পারে ফ্লু, মারা যেতে পারে ৮ কোটি মানুষ   ●  ঈদগাঁওতে সড়ক ও জনপথ বিভাগের শত কোটি টাকার জমি দখল করে স্থাপনা   ●  টেকনাফে ২১০ টি মিয়ানমারের সীমকার্ড সহ ৩ রোহিঙ্গা আটক

মগনামায় এক কিলোমিটার সড়ক সংস্কারে দুঃখ ঘুচলো হাজার শিক্ষার্থীর

পেকুয়া উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের মাঝির পাড়া শাহ রশিদিয়া অালিম মাদ্রাসা সড়ক। যে সড়ক দিয়ে ৩ গ্রামের মানুষ ছাড়াও শাহ রশিদিয়া মাদ্রাসা ও উত্তর মগনামা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের হাজার শিক্ষার্থী চলাচল করে থাকে।

গত পাঁচদিন অাগেও যে সড়কটি দিয়ে মানুষ হাটা ছিল কল্পনার বাইরে এখন সেই সড়কটি পরিপূর্ণভাবে তৈরি করলেন মগনামা ইউপি’র চেয়ারম্যান শরাফত উল্লাহ চৌধুরী ওয়াসিম। চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত উদ্যোগে এক কিলোমিটার সড়কটি মাটি দিয়ে বিশাল অাকারে তৈরি করায় তার সৎ কর্মে সাধুবাদ জানিয়েছে এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা।

জানা গেছে, মগনামা ইউনিয়ন প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে স্থানীয় কোন জনপ্রতিনিধি ও দায়িত্বশীল কোন ব্যক্তি জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কটি সংস্কার করেনি। সড়কটি সংস্কান না করায় হাজার হাজার স্থানীয় জনগণ চরম দূর্ভোগ পোহাচ্ছিল। এছাড়া স্কুল ও মাদ্রাসার কোমলমতি শিক্ষার্থীরাও অাসা যাওয়ায় চরম বেকাদায় পড়তো। এমনকি সামান্য বৃষ্টিতে শিক্ষার্থীদের চলাচল বন্ধ
থাকতো। যার কারণে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় ব্যাপক প্রভাব পড়তো।

অারো জানা গেছে, সড়কটি দিয়ে পাতুর বর বাড়ি, মাঝির পাড়া, মুলার পাড়ার ৪হাজার মানুষ চলাচল করে। প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মাদ্রাসার হাজার শিক্ষার্থী চলাচল করার কারণে সড়কটি সংস্কার করার উদ্যোগ গ্রহণ করেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শরাফত উল্লাহ চৌধুরী। যেমন কথা তেমন কাজ। মাটি কাটার গাড়ি নিয়ে এক কিলোমিটার সড়কটি কাজ শুরু করেন। শুক্রবার কাজটি সমাপ্ত হয়।

শাহ রিশিদিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ নুর ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মোকাদ্দেম বলেন, সড়কটি এলাকাবাসী ছাড়াও স্কুল মাদ্রাসার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। চেয়ারম্যান শরাফত উল্লাহ চৌধুরী ব্যক্তিগত উদ্যোগে সড়কটি সংস্কার করার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

ইউপি চেয়ারম্যান শরাফত উল্লাহ চৌধুরী ওয়াসিম বলেন, মগনামা ইউনিয়নের ধারাবাহিক উন্নয়নের অংশ হিসাবে সড়কটি সংস্কার করা হয়েছে। তাতে ব্যক্তিগতভাবে ১০লাখ টাকার মত খরচ হয়েছে। টাকার চেয়ে এলাকাবাসীর সুযোগ সুবিধা অামার জন্য বড়। ইনশাল্লাহ মগনামায় সড়কের জন্য কোন মানুষ ও শিক্ষার্থী কষ্ট পাবেনা।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।





আপনার মতামত লিখুন :