২১ অক্টোবর, ২০১৯ | ৫ কার্তিক, ১৪২৬ | ২১ সফর, ১৪৪১


বিবিএন শিরোনাম

লিংরোড় এলাকায় যুবতিকে পালাক্রমে ধর্ষন

ককসবাজার শহরের লিংরোড় মহুরী পাড়া সিকদার বাজার এলাকার মোঃ ইসমাইল আলমের যুবতি মেয়েকে পালাক্রমে ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষনের শিকার যুবতি বর্তমানে ককসবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে নিশ্চিত করেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ৮ অক্টোবর মঙ্গলবার ভোররাতে ওই যুবতি ধর্ষনের শিকার হয় বলে জানান, ধর্ষিতার বাবা ইসমাইল আলম। ঘটনার বিবরন দিয়ে ওই ধর্ষিতা যুবতি জানান, প্রতিদিনের মত, তিনি (শিউলী ছদ্ধ নাম) তার মা মায়ের সাথে তাদের বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিলেন। তাদের বাড়িতে বেশির ভাগ সময় কোন পুরুষ থাকতো না। তার ধারা বাহিকতায় ওই রাতে তাদের বাবাও বাড়িতে না থাকার সুযোগে, উৎপেতে থাকা, একই এলাকার পার্শ্ববর্তী বখাটে ও সন্ত্রাসী প্রকৃতির যবকরা, যতাক্রমে, মফিজুর রহমানের ছেলে, নাছির উদ্দিন (২১), লোকমান হাকিমের ছেলে, খালেকুজ্জামান (২৪) এং ছৈয়দ আহম্মদের ছেলে, আবদুল্লাহ (২০) সহ আরো অঙ্গাতনামা ৪/৫ জন ছেলে মিলে ওই মেয়ের মা, রোশন আরা (৫৫)কে, গলায় ছুরি ধরে পার্শ্ববর্তী জঙ্গলে নিয়ে, পালাক্রমে ধর্ষন করে বলে জানান ওই ধর্ষিতা। এক পর্যায়ে ধর্ষিতা মেয়ের, শৌর চিৎকারে পার্শ্ববর্তী লোকজন এগিয়ে আসলে, ওই ধর্ষকরা পালিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেন মেয়ের মা। পরে ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে ককসবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান ধর্ষিতার বড় ভাই। এই ঘটনায় এলাকার চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এলাকার সচেতন মহল অপরাধের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্থি দাবী করেন। এই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান, ধর্ষিতার বড় ভাই নুর হোসেন। এই ব্যাপারে ককসবাজার সদর মডেল থানার পরিদর্শক আরিফ ইকবালের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এই বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।





আপনার মতামত লিখুন :