১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ৩ আশ্বিন, ১৪২৬ | ১৭ মুহাররম, ১৪৪১


বিবিএন শিরোনাম

লোহাগাড়ায় গলায় শাড়ি পেঁচিয়ে তিন সন্তানের জননীর আত্মহত্যা

লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের জঙ্গল পদুয়া মুন্সীর মুড়া হোসেন সিকদার পাড়া এলাকায় ঘরের বীমের সাথে শাড়ী পেঁচিয়ে ঝুঁলে ৩ সন্তানের জননী আত্মহত্যা করেছেন। ২৪ আগষ্ট (শনিবার) রবিবার দুপুর ১টায় এ ঘটনাটি ঘটে।

নিহত মহিলার নাম মোরশিদা বেগম(২৬)। সে ঔ এলাকার মোহাম্মদ রফিক আহমদের কন্যা এবং সাতকানিয়া উপজেলার ঢেমশা মরফলা মরিচ্চা পাড়া এলাকার সেলিমের স্ত্রী ।নিহতের মা রহিমা বেগম জানান, ২০১৪সালে ইসলামী শরীয়াত মোতাবেক সাতকানিয়ার ঢেমশা দক্ষিণ মরফলা মরিচ্চা পাড়া এলাকার আবদুল মোতালেবের পুত্র মুহাম্মদ সেলিম সাথে তার মেয়ে মুরশিদা বেগমের বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাদের সংসারে ৩ মেয়ে জন্ম নেয়। বিয়ের পর থেকেই তার মেয়ে একদিনের জন্য সুখী ছিলনা।
গত ২২আগষ্ট তার মেয়ে স্বামী নির্যাতন চালালে স্হানীয় ইউপি সদস্য ও গন্যমান্য ব্যক্তির সাথে কথা বলে তার মেয়েকে বাপের বাড়ীতে নিয়ে আসে।ঘটনার দিন দুপুরে বাড়ির রুমের দরজা বন্ধ করে সবার অজান্তে বিমের সাথে শাড়ী পেঁছিয়ে সে আত্মহত্যা করেন। খবর পেয়ে স্হানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে সে মারা যান।

খবর পেয়ে লোহাগাড়া থানার এসআই মুহাম্মদ বেলাল ও এসআই অজয় দেব শীলের নেতৃত্বে একটি পুলিশি টিম ঘটনাস্হলে এসে লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।লোহাগাড়া থানার এসআই বেলাল জানান, নিহতের শরীরে গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তবে, এখনো কিছু বলা যাচ্ছে না। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে বলেও তিনি জানান।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।





আপনার মতামত লিখুন :