১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১ আশ্বিন, ১৪২৬ | ১৬ মুহাররম, ১৪৪১


শাহ আমানতের আধুনিকায়নে ৪৭২ কোটি টাকা

চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর আধুনিকায়নের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমানবন্দরটির রানওয়ে সম্প্রসারণ করা হবে। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ৪৭২ কোটি ৭৫ লাখ ৬৮ হাজার টাকা।

আধুনিকায়নের কাজটি বাস্তবায়ন করবে যৌথভাবে মেসার্স মীর আকতার ও সিএএমসিই। বুধবার সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত ক্রয় কমিটির বৈঠকে এ-সংক্রান্ত দর প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়। অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, চট্টগ্রামকে কমার্সিয়াল হাবে রূপান্তর করতে শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উন্নয়ন করা হচ্ছে। এর ফলে এই বিমানবন্দরে বড় বড় এয়ারক্রাফট ওঠানামা করতে পারবে।

বিগত ১৯৯৮-২০০১ সময়ে জাপানের অর্থায়নে এ বিমানবন্দরকে পূর্ণাঙ্গ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উন্নীত করা হয়। ওই সময়ে রানওয়ে সম্প্রসারণসহ বিটুমিন কংক্রিটের মাধ্যমে বিদ্যমান রানওয়ের শক্তি বাড়ানোর কাজ সম্পন্ন করা হয়েছিল। তখন রানওয়ের পেভমেন্ট ক্লাসিফিকেশন নম্বর (পিসিএন) ছিল ৬৬, যা ডিসি-১০-৩০ জাতীয় বিমান চলাচলের উপযোগী করে গড়ে তোলা হয়েছিল।

বিমানবন্দরে যাত্রী, কার্গো ও বিমান চলাচলের সংখ্যা এরই মধ্যে প্রায় সাড়ে তিন থেকে চার গুণ বেড়েছে। বুয়েটের সমীক্ষা অনুযায়ী, রানওয়ের বর্তমান পিসিএন ৪৬। কিন্তু বোয়িং-৭৭৭ জাতীয় বিমান চলাচলের পিসিএন দরকার ৯০।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।





আপনার মতামত লিখুন :

error: Content is protected !!